Sunday , April 5 2020
Home / লাইফস্টাইল / ঘৃতকুমারী গুরুত্বপূর্ণ ভেষজ উদ্ভিদ

ঘৃতকুমারী গুরুত্বপূর্ণ ভেষজ উদ্ভিদ

ঘৃতকুমারী গুরুত্বপূর্ণ ভেষজ গাছ। এর ইংরেজি নাম Chinese Aloe, Indian Aloe, True Aloe, Barbados Aloe, Burn Aloe, First Aid Plant. উদ্ভিদ তাত্ত্বিক নাম Aloe vera (L) Burm.f. পরিবার Xanthorrhoeaceae. ঘৃতকুমারীর আদি নিবাস উত্তর আফ্রিকায় হলেও বাংলাদেশসহ এখন এশিয়ার আরও অনেক দেশে জন্মাচ্ছে। উত্তর আফ্রিকার মরোক্ক, মৌরিতানিয়া, মিসর এমনকি সুদানেও ঘৃতকুমারীর গাছ দেখা যায়।

ঘৃতকুমারী বহুবর্ষজীবী ভেষজ উদ্ভিদ এবং দেখতে অনেকটা আনারস গাছের মতো। পাতা পুরু, দুধারে করাতের মতো কাঁটা এবং ভেতরে লালার মতো পিচ্ছিল শাস থাকে। কার্ল লিনিয়াস ১৭৫৩ সালে প্রথম এ গাছের প্রজাতি Aloe perfoliata var.vera নামে বর্ণনা করেন। পরে ১৭৬৮ সালে নিকোলাস লরেন্স বুরম্যান এ প্রজাতির নাম দেন Aloe vera ঘৃতকুমারী গাছ বেশ কয়েক বছর বাঁচে। এ গাছ রসালো প্রকৃতির গাছ। ৬০ থেকে ১০০ সেন্টিমিটার লম্বা হয়, গাছের গোড়া থেকে অনেক পাতা একের পর এক ঊর্ধ্বমুখী বের হয়। পাতা বেশ মাংসল, পুরু ও নরম। গ্রীষ্মকালে লম্বা ডাঁটায় এর ফুল ফোটে। ফুলের ডাঁটা প্রায় ৯০ সেন্টিমিটার লম্বা। ফুল নলাকার, রঙ হলদে।

প্রায় দুই হাজার বছর আগে থেকেই ঘৃতকুমারী গাছ প্রসাধন ও ওষুধ শিল্পের কাঁচামাল হিসেবে ব্যবহৃত হয়ে আসছে। শরীরের বিভিন্ন রোগ দূর করতে এ গাছের ব্যবহার সর্বজনবিদিত। এর পাতা কাটলে ভেতরে জেলির মতো থকথকে স্বচ্ছ শাস পাওয়া যায়। হালকা তিক্ত স্বাদের এ শাস শরীর ঠাণ্ডা রাখার জন্য ও শক্তি বাড়ানোর জন্য শরবত করে খাওয়া হয়। ভারত, যুক্তরাষ্ট্র, জ্যামাইকা, দক্ষিণ আফ্রিকা, রাশিয়া, জাপান ও চীনে ঘৃতকুমারী থেকে ভেষজ ওষুধ তৈরি করা হয়। ভেষজ ছাড়াও ঘৃতকুমারী ময়েশ্চারাইজিং লোশন, ইয়োগার্ট, পানীয়, ডেজার্ট ইত্যাদি তৈরিতে ব্যবহার করা হয়। ঘৃতকুমারী পাতার রস ২ থেকে ৪ চামচ করে দিনে একবার খেলে যকৃতের কর্মক্ষমতা বৃদ্ধি পায়। কোনো জায়গা আগুনে পুড়ে গেলে টাটকা পাতার শাস লাগলে আরাম পাওয়া যায়। এর ফলে ফোসকা পড়ে না এবং চামড়ায় দাগ হয় না। এমনি অনেক রোগ থেকে মুক্তি মেলে ঘৃতকুমারী খেলে।

ঘৃতকুমারী চারা লাগানোর ছয় মাস পর পাতা তোলা যায়। তবে শীতকালে বন্ধ থাকে। বছরে ৯ থেকে ১০ মাস পাতা তোলা যায়। সাধারণত প্রতি ১৫ দিনে একটি পাতা বের হয়। একটি গাছ থেকে মাসে ১-২টি পাতা সংগ্রহ করা যায়। গাছের বৃদ্ধি ও পাতা বড় হলে প্রতি মাসে ২টি পাতা তোলা যায়।

লেখক : কৃষিবীধ ও গবেষক

এছাড়াও দেখুন

৫টি ঘরোয়া সমাধান গ্যাস্ট্রিকের

গ্যাস্ট্রিক বা অ্যাসিডিটির সাথে সবাই-ই কম বেশি পরিচিত। এই সমস্যাটি প্রায় মানুষের মধ্যেই রয়েছে। চিকিৎসা …